রেফারেন্স নম্বর চালান কপির উপর না লেখায়
আমার আবেদন বাতিল করা হয়েছে


চালানকপির উপর রেফারেন্স নম্বর লেখা আবশ্যক নয়

আপনি যদি অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ওয়েব পেইজে আবেদন সাবমিটের কাজ শুরু করেন তাহলে চতুর্থ ধাপে গিয়ে আপনি চালান কপি ডাউনলোড করার অপশন পেয়ে যাবেন । চালান জমা দেয়ার জন্য চালান ফরমে আপনাকে কোনকিছু লিখতে হবেনা এমনকি রেফারেন্স নম্বরটিও উহাতে লেখা থাকে। এটাই আপনার জন্য সহজ। আর আপনি যদি আবেদনের কাজ শুরু করার পূর্বে ব্যাংকে টাকা জমা দিতে দেন তাহলে আপনার রেফারেন্স নম্বরটি চালানকপির উপরে লিখে দিবেন। আপনার আগের আবেদনটি যদি বাতিল হয়ে যায় তাহলে নতুন রেফারেন্স নম্বরটি চালানকপির উপরে লিখে দিবেন। আগের নম্বরটি কেটে দিবেন। যদিও চালানকপির উপর রেফারেন্স নম্বর লেখা এখন আর আবশ্যক নয় তারপরও পুলিশ অফিস আবেদনটি বাতিল করে দিতে পারেন।

আবেদন বাতিল হলে আপনাকে যা করতে হবে


একটি আবেদন বাতিল করার পিছনে অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে। এতে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আপনার সাবমিট করা আবেদনটি যদি সংশ্লিষ্ট পুলিশ অফিস কর্তৃক বাতিল করা হয় তাহলে উক্ত আবেদন বাতিল করার পিছনে সঠিক কারণটি জানার চেষ্টা করুন। অনেক সময় রিমার্কস কলামে আবেদন বাতিলের কারণটি সংশ্লিষ্ট পুলিশ অফিস কর্তৃক লেখা থাকে। আপনি আবেদন সাবমিট করার সময় যে আইডি ব্যবহার করেছেন সেখানেই আবেদন বাতিলের কারণটি কারেন্ট স্ট্যাটাসে দেখতে পাবেন। কারণ অনুসন্ধানের পর আপনি একই চালান কপি দিয়ে পুনরায় আবেদনের কাজ করতে পারবেন। ব্যাংকে নতুন করে চালান জমা দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্ত অনেকেই এই ভুলটি করেন। আবেদন বাতিল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি পুনরায় আরেকটি নতুন চালান সংগ্রহ করেন যেটি ভুল সিদ্ধান্ত এবং অনর্থক অর্থের অপচয় হয়। আমার এই লেখাটি পড়ার পর নিশ্চই আপনার আর ভুল হবেনা। এবং অন্যকে এই ভুল কাজ করা হতে বিরত রাখবেন মর্মে বিশ্বাস করি। একটি কথা মনে রাখতে হবে যে, নতুন রেফারেন্স নম্বরটি অবশ্যই চালান কপির উপর লিখে দিতে হবে Read More

আবেদন বাতিল হওয়ার কারণগুলো

আরো জানতে চান ? Read More